Welcome to MN soft BD

Wednesday, April 18, 2018

HCI Channel

Amazing view of Kutubdia island | Wind Power Plant & River | Cox's Baza...



কুতুবদিয়া বাংলাদেশের কক্সবাজার জেলার অন্তর্গত একটি উপজেলা। এটি একটি দ্বীপ, যা কুতুবদিয়া চ্যানেল দ্বারা মূল ভূখণ্ড থেকে বিচ্ছিন্ন।


আয়তন[উৎস সম্পাদনা]

কুতুবদিয়া উপজেলার আয়তন ২১৫.৮০ বর্গ কিলোমিটার।[২]

অবস্থান[উৎস সম্পাদনা]

কক্সবাজার জেলার উত্তর-পশ্চিমাংশে ২১°৪৩´ থেকে ২১°৫৬´ উত্তর অক্ষাংশ থেকে ৯১°৫০´ থেকে ৯১°৫৪´ পূর্ব দ্রাঘিমাংশ জুড়ে কুতুবদিয়া উপজেলার অবস্থান। কক্সবাজার জেলা সদর থেকে এ উপজেলার দূরত্ব ৭৫ কিলোমিটার। এর উত্তর, পশ্চিম ও দক্ষিণ তিন দিকেই বঙ্গোপসাগর দ্বারা বেষ্টিত এবং পূর্ব দিকে কুতুবদিয়া চ্যানেলও মহেশখালী উপজেলাপেকুয়া উপজেলা এবং চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলা অবস্থিত।[৩]

প্রশাসনিক এলাকা[উৎস সম্পাদনা]

১৯১৭ সালে মহেশখালী থানা থেকে পৃথক করে কুতুবদিয়া থানা গঠিত হয় এবং থানাকে উপজেলায় রূপান্তর করা হয় ১৯৮৩ সালে।[৩] এ উপজেলায় ৬টি ইউনিয়ন রয়েছে এবং এ উপজেলার প্রশাসনিক কার্যক্রম কুতুবদিয়া থানার আওতাধীন।

ইতিহাস ও নামকরণ[উৎস সম্পাদনা]

দীর্ঘদিন ধরে কুতুবদিয়া দ্বীপের গঠন প্রক্রিয়া শুরু হলেও এ দ্বীপ সমুদ্র বক্ষ থেকে জেগে উঠে চতুর্দশ শতাব্দীর শেষের দিকে। ধারণা করা হয়, পঞ্চদশ শতাব্দীর শেষের দিকে এ দ্বীপে মানুষের পদচারণা। হযরত কুতুবুদ্দীন নামে এক কামেল ব্যক্তি আলী আকবর, আলী ফকির, এক হাতিয়া সহ কিছু সঙ্গী নিয়ে মগ পর্তুগীজ বিতাড়িত করে এ দ্বীপে আস্তানা স্থাপন করেন। অন্যদিকে আরাকান থেকে পলায়নরত মুসলমানেরা চট্টগ্রামের আশেপাশের অঞ্চল থেকে ভাগ্যান্বেষণে উক্ত দ্বীপে আসতে থাকে। জরিপ করে দেখা যায়, আনোয়ারা, বাঁশখালী, সাতকানিয়া, পটিয়া, চকরিয়া অঞ্চল থেকে অধিকাংশ আদিপুরুষের আগমন। নির্যাতিত মুসলমানেরা কুতুবুদ্দীনের প্রতি শ্রদ্ধান্তরে কুতুবুদ্দীনের নামানুসারে এ দ্বীপের নামকরণ করেন কুতুবুদ্দীনের দিয়া, যা পরবর্তীতে কুতুবদিয়া নামে স্বীকৃতি লাভ করে।[৫] দ্বীপকে স্থানীয়ভাবে দিয়া বা ডিয়া বলা হয়। পরবর্তীতে বিভিন্ন এলাকা থেকে লোকজন এসে এই দ্বীপে বসবাস শুরু করে। বর্তমানে (২০১৭) এই দ্বীপের বয়স ৬০০ বছর পেরিয়ে গেছে। এই দ্বীপের আয়তন প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ কমে গেছে এবং এখনও সাগরের ঢেউয়ের প্রভাবে ভেঙ্গে সমুদ্রে পরিণত হচ্ছে সৌন্দর্যের লীলাভূমি সাগরকন্যা কুতুবদিয়া দ্বীপটি।

জনসংখ্যার উপাত্ত[উৎস সম্পাদনা]

২০১১ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী কুতুবদিয়া উপজেলার লোকসংখ্যা ১,৩৩,৮৮৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৬৯,৭৩৮ জন এবং মহিলা ৬৪,১৫০ জন।[১] এ উপজেলার মোট জনসংখ্যার ৯৩% মুসলিম, ৬.৯৬% হিন্দু এবং ০.০৪% বৌদ্ধ ও অন্যান্য ধর্মাবলম্বী রয়েছে।[৩]

শিক্ষা[উৎস সম্পাদনা]

কুতুবদিয়া উপজেলার স্বাক্ষরতার হার ৩৮%।[৩] এ উপজেলায় ৩টি কলেজ, ১টি ফাজিল মাদ্রাসা, ১টি আলিম মাদ্রাসা, ১টি স্কুল এন্ড কলেজ, ৭টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ৭টি দাখিল মাদ্রাসা, ১টি নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ৫৮টি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে।
শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

স্বাস্থ্য[উৎস সম্পাদনা]

কুতুবদিয়া উপজেলায় ১টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, ৪টি উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র ও ৬টি পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্র রয়েছে।[৩]

যোগাযোগ ব্যবস্থা[উৎস সম্পাদনা]

কক্সবাজার জেলা সদর বা বাংলাদেশের যে কোন অঞ্চল থেকে কুতুবদিয়া উপজেলায় একমাত্র যোগাযোগ ব্যবস্থা নৌপথে। প্রধান যোগাযোগ মাধ্যম লঞ্চ, স্টীমার।

খাল ও নদী[উৎস সম্পাদনা]

কুতুবদিয়া উপজেলার উত্তর, পশ্চিম ও দক্ষিণ তিন দিকেই বঙ্গোপসাগর এবং পূর্বে কুতুবদিয়া চ্যানেল[৩]

হাট-বাজার[উৎস সম্পাদনা]

কুতুবদিয়া উপজেলায় মোট হাট-বাজার ১২টি। এর মধ্যে বড়ঘোপ বাজার এবং ধুরুং বাজার উল্লেখযোগ্য।[৩]

পত্র-পত্রিকা ও সাময়িকী[উৎস সম্পাদনা]

  • কুতুবদিয়া নিউজ
  • কুতুবদিয়ার খবর (পাক্ষিক)

দর্শনীয় স্থান[উৎস সম্পাদনা]

  • বায়ুবিদ্যুৎ প্রকল্প (বায়ুকল)
  • কুতুব শরীফ দরবার
  • কুতুব আউলিয়ার মাজার
  • বড়ঘোপ সমুদ্র সৈকত
  • প্রাকৃতিক উপায়ে লবণ তৈরির মাঠ
  • কুতুবদিয়া বাতিঘর
  • বড়ঘোপ সরকারি স্টেডিয়াম
  • কালারমার মসজিদ
  • ফকিরা মসজিদ
  • ধুরুং স্টেডিয়াম

কৃতী ব্যক্তিত্ব[উৎস সম্পাদনা]

  • অাবদুল মালেক শাহ্ অাল কুতুবী; তাপস।
  • মাওলানা আবদুর রহিম রেজভী; কলকাতা আলিয়া মাদ্রাসা থেকে স্বর্ণপদক প্রাপ্ত।
  • এটিএম নুরুল বশর চৌধুরী; উপজেলা চেয়ারম্যান।

প্রাকৃতিক দুর্যোগ[উৎস সম্পাদনা]

ভৌগোলিক অবস্থানের কারণে কুতুবদিয়া প্রাকৃতিক দুর্যোগপ্রবণ এলাকা। ১৫৬৯ সালের জলোচ্ছ্বাস, ১৭৬২ সালের ভূমিকম্প, ১৭৯৫ সালের ঘূর্ণিঝড়, ১৮৭২ সালের মহাপ্রলয়, ১৮৯৭ সালের জলোচ্ছ্বাস (মগীর তুফান), ১৯০৫ সালের টর্নেডো, ১৯৬০ ও ১৯৭০ সালের জলোচ্ছ্বাসে এ এলাকার বেশ সংখ্যক মানুষ ও গবাদিপশুর প্রাণহানি ঘটে এবং ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়। ১৯৯১ সালের ২৯ এপ্রিল ঘূর্ণিঝড় ও জলোচ্ছ্বাসে কুতুবদিয়া উপজেলার প্রায় ১০ হাজার মানুষের প্রাণহানি ঘটে। একসময় এ উপজেলার একটি বিরাট অংশ সাগর বক্ষে বিলীন হয়ে যায়।[৩]




কুতুবদিয়া
কুতুবদিয়া বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
কুতুবদিয়া
কুতুবদিয়া
বাংলাদেশে কুতুবদিয়া উপজেলার অবস্থান
দেশ
প্রতিষ্ঠাকাল
১৯১৭
সংসদীয় আসন
সরকার
 • সংসদ সদস্য
আশেক উল্লাহ রফিক (বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ)
আয়তন
 • মোট
২১৫.৮০ কিমি (৮৩.৩২ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)[১]
 • মোট
১,৩৩,৮৮৮
 • ঘনত্ব
৬২০/কিমি (১৬০০/বর্গমাইল)
স্বাক্ষরতার হার
 • মোট
৭৭%
৪৭২০ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
ওয়েবসাইট

HCI Channel

About HCI Channel -

I am looking forward to work for a dynamic organization where my knowledge and skill will be rewarded and appreciated and where career is guaranteed. Good Communication skill and ability to do hard work honestly and dedicated to my own duties.

Subscribe to this Blog via Email :